ডিসেম্বর ৪, ২০২২, ৮:৪৮ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
বাংলাদেশ প্রিন্টিং মাষ্টার এসোসিয়েশন এর প্রথম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন ওএমএস এর পণ্য বিক্রয়ে অনিয়ম বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি, তারেক রহমান ও জোবাইদা রহমানের গ্রেফতারি পরোয়ানা প্রত্যাহার এবং বিএনপি নেতা জাকির খানের মুক্তি চাই – আতাউর রহমান মুকুল একজন ভালো জীবনসঙ্গীর বৈশিষ্ট্য সিদ্ধিরগঞ্জে ‘কিশোর গ্যাংয়ের’ হামলায় প্রাণ গেলো কলেজ ছাত্রের বন্দরে বেদে ও তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ দেশের সমৃদ্ধি কামনায় রুবেল মাদবরের উদ্যোগে আইমান ট্রেডার্সের দোয়া ও ইফতার রূপগঞ্জে ডিবি পুলিশের অভিযানে বিপুল পরিমান গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার চিত্তরঞ্জন খেয়া ঘাটে ইজারাদার- মাঝিদের ঘাট জমা নিয়ে সিদ্ধান্তহীনতা, নৌকা বন্ধ তিন দিন সময়ের পরিক্রমায় মরে যায় এমপি-মন্ত্রী, মরেনা রেলওয়ে কালো বিড়াল গোপন বিয়ের জের ধরে খুন, আটক ১ গাইবান্ধা পলাশবাড়ীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১, আহত ৬ প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ লিখিত পরীক্ষার সময় সূচী প্রকাশ র‌্যাব-১১’র অভিযানে নারীসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক কিশোরগঞ্জে লুপ কাটিংয়ের মাটি বিক্রি হচ্ছে রাতের আধারে, ব্লক নির্মানে হচ্ছে অনিয়ম পুরোনো চেহারায় চাষাড়ার অবৈধ অটো স্ট্যান্ড নীট কনসার্ন গ্রুপের লিফট ছিঁড়ে অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ ১৪ শ্রমিক আহত প্রিয় বাসিনী বাংলাদেশ অ্যাওয়ার্ড ২০২০-২১ পেলেন নারায়ণগঞ্জের আফরোজা ওসমান আগামী ২৩ শে জুন ২১ জেলার ভাগ্যের দুয়ার খুলছে স্বপ্নের পদ্মা সেতু নাসিক-১০নং ওয়ার্ডে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে কাউন্সিলর খোকনের দিনভর বিভিন্ন অনুষ্ঠান ও দোয়ার আয়োজন
করোনায় ভয় পেলে আপনার হবে ক্ষতি
মনোরোগ চিকিৎসক আহমেদ হেলাল ও মেখলা সরকার। ছবি: প্রথম আলো

করোনায় ভয় পেলে আপনার হবে ক্ষতি

বর্তমান খবর ডেস্ক: জ্যামিতিক হারে বাড়ছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। একই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যু। এর মধ্যে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে মারা গেছেন ১৩ হাজার ৪৯ জন। বাংলাদেশেও মারা গেছেন দুজন। সংক্রমিত ২৭ জন।

বাংলাদেশসহ বিশ্বের প্রতিষ্ঠিত সব গণমাধ্যম প্রতিমুহূর্তে করোনাভাইরাসের খবর প্রকাশ করে যাচ্ছে। ফেসবুকসহ শীর্ষ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও করোনাভাইরাসের খবরে আগ্রহ মানুষের। অর্থাৎ, এই সময়ে করোনাভাইরাস মানুষের চিন্তার প্রধান বিষয়।

আরাফাত হোসেন ঢাকার একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। তাঁর দুই ছেলে, এক মেয়ে। বড় ছেলে নবম শ্রেণিতে, ছোটটি পঞ্চম শ্রেণিতে। মেয়েটির বয়স মাত্র তিন বছর। স্কুল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তাঁরা ঘরে বন্দী। কিন্তু চাকরির কারণেই আরাফাতকে রোজ বাসা থেকে বের হতে হচ্ছে।

আরাফাত বেশ চিন্তিত। তবে করোনাভাইরাসের থেকে বাঁচার জন্য নিয়ম মেনে মাস্ক পরছেন। নিয়মিত সাবান দিয়ে হাত ধুচ্ছেন।

আরাফাত বলেন, ‘যেভাবে মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছে, এই খবরে আমি খুব চিন্তিত। ভয় পাচ্ছি, আমিও যদি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যাই। আমার বাচ্চারাও যদি করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়।’

একপর্যায়ে আরাফাত বললেন, ‘ভাই, আমি কিছু ভাবতে পারছি না। করোনাভাইরাস নিয়ে একটা অজানা ভয় আমার মধ্যে কাজ করছে।’

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস নিয়ে এমন ভয় বা আতঙ্ক অনেকের মধ্যে রয়েছে।

এমন পরিস্থিতিতে এই ভয় বা আশঙ্কা অস্বাভাবিক কিছু নয় বলে মনে করেন মনোরোগ চিকিৎসক আহমেদ হেলাল। তিনি জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত।

আহমেদ হেলাল প্রথম আলোকে বলেন, ‘বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গবেষণা বলছে, করোনাভাইরাস নিয়ে সৃষ্ট বৈশ্বিক মহামারির এই সময়ে আতঙ্কিত হওয়া, ভয় পাওয়া, অবসাদে ভোগা, রেগে যাওয়া, হতাশ হয়ে যাওয়া, এগুলো স্বাভাবিক প্রতিক্রিয়া। মানুষ আতঙ্কিত হবে। ভয় পাবে। উদ্বিগ্ন হবে। তাদের আচরণের পরিবর্তন অবশ্যই হবে।’

তাহলে করোনাভাইরাস নিয়ে এই ভয়, আতঙ্ক, এমন পরিস্থিতিতে মানুষ কী করবে?

আহমেদ হেলাল বলেন, ‘আমরা যদি আতঙ্কিত হই, আমরা যদি মানসিক চাপে ভুগতে থাকি, আমরা যদি ভয় পাই, উদ্বিগ্ন হই, তাহলে আমাদের রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা কমতে থাকবে। আতঙ্কিত বা ভয় পেলে আমাদের শরীরের বিভিন্ন ট্রান্সমিটারে একটা তারতম্য ঘটে। এতে স্বাভাবিক রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা কমে যায়। ফলে যিনি আতঙ্কিত হবেন, উদ্বিগ্ন হবেন, যার মধ্যে মানসিক চাপ বেশি থাকবে, তিনি কিন্তু সহজে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের ঝুঁকিতে থাকবেন।’

বাস্তবতা মেনে নিন
তামান্না খাতুন একজন গৃহিণী। তাঁর এক ছেলে, এক মেয়ে। ছেলে পড়ে ষষ্ঠ শ্রেণিতে, মেয়ে তৃতীয় শ্রেণিতে। তামান্নার স্বামী আবদুস সবুর বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। সবুরের মা লুৎফুন্নেসার বয়স এখন ৭০ বছর। বয়সজনিত নানা রোগে আক্রান্ত তিনি।

বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে যাঁরা মারা গেছেন, তাঁদের একটা বড় অংশ বৃদ্ধ মানুষ।

তামান্না খাতুন বলছিলেন, ‘করোনাভাইরাস নিয়ে অনলাইনে, পত্রিকায়, টেলিভিশনে সর্বশেষ সব খবর জানছি। করোনাভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে। বাংলাদেশেও দুজন মানুষ মারা গেছেন, যাঁরা বৃদ্ধ। ঘরে আমার বৃদ্ধ শাশুড়ি। আমার বাচ্চারা আজ ঘরে বন্দী। তবে চাকরির কারণে স্বামী ঘরের বাইরে যাচ্ছেন। ভয় হয়, যদি আমরাও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হই।’

তামান্নার মতো আরও অনেকের মধ্যে এ ভয় কাজ করছে।

মনোরোগ চিকিৎসক মেখলা সরকার মনে করেন, করোনাভাইরাস নিয়ে যে বাস্তবতা, সেটা মেনে নিতে হবে।

জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের সহযোগী অধ্যাপক মেখলা সরকার প্রথম আলোকে বলেন, ‘করোনাভাইরাস সম্পর্কে আমাদের তেমন কোনো ধারণা নেই। যে জিনিসটা আমরা আসলে জানি না, সেই জিনিসটা আমাদের মধ্যে এক ধরনের অনিশ্চয়তা তৈরি করে। অনিশ্চয়তা থেকে আমাদের মধ্যে একধরনের ভয় হয়। ভয়টা আতঙ্কে রূপ নিতে পারে। যখন মানুষের করার কিছু থাকে না, তখন কিন্তু মানুষের মধ্যে একধরনের অসহায়ত্ব তৈরি করে। অসহায়ত্ব মানুষের মধ্যে একধরনের মানসিক চাপ তৈরি করে। ব্যক্তিবিশেষে একেকজনের মানসিক চাপ একেক রকমের। কারও হয়তোবা সামান্য ভয় লাগছে, কেউ হয়তোবা শঙ্কার মধ্যে আছে, অনেকে সাংঘাতিক আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে যাচ্ছেন।’

সংবাদ টি শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ’বর্তমান খবর'কে জানাতে ই-মেইল করুন- bartomankhobar@gmail.com’ আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও খবর...।


Bartoman Khobar ads
Bartoman Khobar ads