ডিসেম্বর ১, ২০২২, ১১:৩৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
ওএমএস এর পণ্য বিক্রয়ে অনিয়ম বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি, তারেক রহমান ও জোবাইদা রহমানের গ্রেফতারি পরোয়ানা প্রত্যাহার এবং বিএনপি নেতা জাকির খানের মুক্তি চাই – আতাউর রহমান মুকুল একজন ভালো জীবনসঙ্গীর বৈশিষ্ট্য সিদ্ধিরগঞ্জে ‘কিশোর গ্যাংয়ের’ হামলায় প্রাণ গেলো কলেজ ছাত্রের বন্দরে বেদে ও তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ দেশের সমৃদ্ধি কামনায় রুবেল মাদবরের উদ্যোগে আইমান ট্রেডার্সের দোয়া ও ইফতার রূপগঞ্জে ডিবি পুলিশের অভিযানে বিপুল পরিমান গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার চিত্তরঞ্জন খেয়া ঘাটে ইজারাদার- মাঝিদের ঘাট জমা নিয়ে সিদ্ধান্তহীনতা, নৌকা বন্ধ তিন দিন সময়ের পরিক্রমায় মরে যায় এমপি-মন্ত্রী, মরেনা রেলওয়ে কালো বিড়াল গোপন বিয়ের জের ধরে খুন, আটক ১ গাইবান্ধা পলাশবাড়ীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১, আহত ৬ প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ লিখিত পরীক্ষার সময় সূচী প্রকাশ র‌্যাব-১১’র অভিযানে নারীসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক কিশোরগঞ্জে লুপ কাটিংয়ের মাটি বিক্রি হচ্ছে রাতের আধারে, ব্লক নির্মানে হচ্ছে অনিয়ম পুরোনো চেহারায় চাষাড়ার অবৈধ অটো স্ট্যান্ড নীট কনসার্ন গ্রুপের লিফট ছিঁড়ে অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ ১৪ শ্রমিক আহত প্রিয় বাসিনী বাংলাদেশ অ্যাওয়ার্ড ২০২০-২১ পেলেন নারায়ণগঞ্জের আফরোজা ওসমান আগামী ২৩ শে জুন ২১ জেলার ভাগ্যের দুয়ার খুলছে স্বপ্নের পদ্মা সেতু নাসিক-১০নং ওয়ার্ডে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে কাউন্সিলর খোকনের দিনভর বিভিন্ন অনুষ্ঠান ও দোয়ার আয়োজন নাসিক-১০নং ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা কাজী আমির এর উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী পালন
নারায়ণগঞ্জের নদীগুলো  দূষণে শত প্রতিষ্ঠান, প্রতিরোধ নাই
নারায়ণগঞ্জের নদীগুলো  দূষণে শত প্রতিষ্ঠান, প্রতিরোধ নাই

নারায়ণগঞ্জের নদীগুলো  দূষণে শত প্রতিষ্ঠান, প্রতিরোধ নাই

বর্তমান খবর ডেস্ক:

শীতলক্ষ্যা, বুড়িগঙ্গার পর ধলেশ্বরীর পানির দূষণ বিপজ্জনক স্তরে পৌঁছাচ্ছে। দূষণ শুরু হয়েছে ব্রহ্মপুত্র ও মেঘনা নদীতেও। রয়েছে দখলদারদের থাবা। এছাড়া বালু উত্তোলনেও নদী ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা ৪টি নদী ও ১টি নদ দ্বারা বেষ্টিত। সরকারি হিসাবে এ সকল নদ-নদী দখলে প্রায় ৩ শতাধিক ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান জড়িত। যদিও বাস্তবে এ সংখ্যা কয়েক গুণ। আর নারায়ণগঞ্জে নদী দূষণের তালিকায় রয়েছে ৭৪টি প্রতিষ্ঠান।

দখলবাজরা শুধু নদীর দুই পাড় দখল করেই ক্ষান্ত হয়নি। তারা প্রবহমান নদীর পানিতে বাঁশ-কাঠের মাচা তুলে বানিয়েছে ঘরবাড়ি-দোকানপাট।

এমন প্রেক্ষাপটে আজ দেশে ‘নদী রক্ষা দিবস’ পালিত হচ্ছে। নদী রক্ষায় সচেতনতা বাড়তে প্রতি বছর দিবসটি পালিত হয়ে আসছে।

জানা গেছে, জেলাটির পূর্ব সীমানা দিয়ে মেঘনা নদী, পশ্চিম সীমানার কিছু অঞ্চল দিয়ে বুড়িগঙ্গা এবং দক্ষিণ/পশ্চিম সীমানায় ধলেশ্বরী নদী প্রবাহিত। ঢাকা থেকে প্রায় ২০ কি.মি দক্ষিণ-পূর্বে লাঙ্গলবন্দের মধ্য দিয়ে ব্রহ্মপুত্রের প্রবাহীত হয়েছে। প্রতিবছর চৈত্র মাসের অষ্টমী তিথিতে এই স্থানে ব্রহ্মপুত্র নদে পুণ্যস্নানার্থে দেশ-বিদেশের হাজার হাজার হিন্দু ধর্মাবলম্বী ভক্তপ্রাণের আগমন ঘটে। কিন্তু প্রতিনিয়ত আমাদের নদী বিভিন্ন ভাবে দূষিত হচ্ছে। শিল্পকারখানার বর্জ্য, কৃষিতে ব্যবহৃত সার-কীটনাশক এবং ঘরবাড়ির আবর্জনাও মিশে যাচ্ছে নদীতে। এর প্রভাবে সবচেয়ে দূষিত হচ্ছে নদীর পানি।

নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি অ্যাডভোকেট মাহবুবুর রহমান মাসুম বলেন, মুহাম্মদ ইবনে বতুতার আমলে অন্যতম ভুমিকা রেখেছিল এই শীতলক্ষ্যা নদী। তখন থেকেই এই জেলার ব্যবসা-বাণিজ্য হতো নদী গুলোর মাধ্যমে। শীতলক্ষ্যা নদীর দিকে তাকালে এখন কষ্ট লাগে, কিছু দেখি না। এখন নদী দূষণ হচ্ছে আমাদের মানবসভ্যতা ও বিভিন্ন গার্মেন্টস এর দূষিত বর্জ্য দ্বারা। যদিও বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছিল সরকার। কিন্তু পরিশেষে বেহাল অবস্থাই রয়ে যাচ্ছে। শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে উচ্ছেদ অভিযান আমরা প্রায়ই দেখি কিন্তু সেটি কিছু সময়ের জন্য। কয়েকদিন পর আগের অবস্থাই ফিরে আসে। তাই আমাদের ও বিভিন্ন গার্মেন্টস কর্তৃপক্ষকে এই বিষয় গুলোতে আরও সচেতন হওয়া প্রয়োজন।

নারায়ণগঞ্জে কলেজের অধ্যক্ষ ফজলুল হক রুমন রেজা বলেন, পরিবেশ ও আগামী ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে আমাদের অন্তত নদী গুলোকে বাঁচানো দরকার। আজকে হোক, কালকে হোক- এক সময় নদীর প্রয়োজন হবেই। আমাদের সরকারকেও এই বিষয়ে সচেতন হতে হবে এবং সঠিক পরিকল্পনা করতে হবে। যেই উদ্দ্যোগই নেওয়া হক না কেন, সঠিক পদ্ধতি কার্যকর যেন হয়; সেটাও লক্ষ্য রাখতে হবে।

নারায়ণগঞ্জ পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. সাঈদ আনোয়ার বলেন, আমাদের দেশের জন্য নদী অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি জিনিস। নদী ও পরিবেশ মানুষের চলাচলের উপযোগী করতে আমরা পরিবেশ অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে অনেক চেষ্টা করছি। আগামী ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে নদী রক্ষায় সবাইকে সচেতন হওয়া দরকার। এ সময় তিনি কল-কারখানা ও গার্মেন্টস কর্তৃপক্ষকে আরও সচেতন হওয়ার আহব্বান জানান।

সংবাদ টি শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ’বর্তমান খবর'কে জানাতে ই-মেইল করুন- bartomankhobar@gmail.com’ আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও খবর...।


Bartoman Khobar ads
Bartoman Khobar ads