ডিসেম্বর ২, ২০২২, ১:২৫ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
ওএমএস এর পণ্য বিক্রয়ে অনিয়ম বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি, তারেক রহমান ও জোবাইদা রহমানের গ্রেফতারি পরোয়ানা প্রত্যাহার এবং বিএনপি নেতা জাকির খানের মুক্তি চাই – আতাউর রহমান মুকুল একজন ভালো জীবনসঙ্গীর বৈশিষ্ট্য সিদ্ধিরগঞ্জে ‘কিশোর গ্যাংয়ের’ হামলায় প্রাণ গেলো কলেজ ছাত্রের বন্দরে বেদে ও তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ দেশের সমৃদ্ধি কামনায় রুবেল মাদবরের উদ্যোগে আইমান ট্রেডার্সের দোয়া ও ইফতার রূপগঞ্জে ডিবি পুলিশের অভিযানে বিপুল পরিমান গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার চিত্তরঞ্জন খেয়া ঘাটে ইজারাদার- মাঝিদের ঘাট জমা নিয়ে সিদ্ধান্তহীনতা, নৌকা বন্ধ তিন দিন সময়ের পরিক্রমায় মরে যায় এমপি-মন্ত্রী, মরেনা রেলওয়ে কালো বিড়াল গোপন বিয়ের জের ধরে খুন, আটক ১ গাইবান্ধা পলাশবাড়ীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১, আহত ৬ প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ লিখিত পরীক্ষার সময় সূচী প্রকাশ র‌্যাব-১১’র অভিযানে নারীসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক কিশোরগঞ্জে লুপ কাটিংয়ের মাটি বিক্রি হচ্ছে রাতের আধারে, ব্লক নির্মানে হচ্ছে অনিয়ম পুরোনো চেহারায় চাষাড়ার অবৈধ অটো স্ট্যান্ড নীট কনসার্ন গ্রুপের লিফট ছিঁড়ে অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ ১৪ শ্রমিক আহত প্রিয় বাসিনী বাংলাদেশ অ্যাওয়ার্ড ২০২০-২১ পেলেন নারায়ণগঞ্জের আফরোজা ওসমান আগামী ২৩ শে জুন ২১ জেলার ভাগ্যের দুয়ার খুলছে স্বপ্নের পদ্মা সেতু নাসিক-১০নং ওয়ার্ডে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে কাউন্সিলর খোকনের দিনভর বিভিন্ন অনুষ্ঠান ও দোয়ার আয়োজন নাসিক-১০নং ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা কাজী আমির এর উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী পালন
ফাইল ফটো
ফাইল ফটো

২০২৪ আসলে তখন সিদ্ধান্ত নেব, আমি কী করব- শেখ হাসিনা।

ষ্টাফ রিপোর্টঃ
শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে ২০২৪ সালের নির্বাচনে আপনি অংশ নেবেন কিনা এক সাংবাদিকের এমন প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন- ২০২৪ সাল আসলে তখন সিদ্ধান্ত নেব, আমি কী করব। উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের জন্য ২০২৬ সাল পর্যন্ত তার মান ধরে রাখতে হবে। এজন্য আমাদের নানা চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে হবে, আমরা সব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে প্রস্তুত। আমার মনে হয়, এই কথার মধ্যে সব উত্তর আছে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বলেন- ২০২৪ সালের মধ্যে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে বাংলাদেশ গ্র্যাজুয়েশন সম্পন্ন করবে। এই অর্জনকে ধরে রাখাটাই বড় চ্যালেঞ্জ। সেই চ্যালেঞ্জগুলো কিভাবে মোকাবিলা করতে পারি, আমরা সেই প্রস্তুতিই নিচ্ছি। ২০২৪ সাল থেকে ২০২৬ সাল পর্যন্ত উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে প্রয়োজনীয় সূচকগুলো ধরে রাখতে হবে। আর সেই চ্যালেঞ্জ নিতে যা যা করা দরকার, আমি তাই করতে প্রস্তুত।

আরেক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন- এই বাংলাদেশে এমন মানুষ ছিল, যাদের কোনো আশা-ভরসা নেই, হাত পেতে চলতে হয়। তাদের জন্য আমরা ঠিকানার ব্যবস্থা করে দিয়েছি। মুজিববর্ষে এটিই হচ্ছে সবচেয়ে বড় কাজ। ওই ঠিকানাই তার অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডের ক্ষেত্র হিসেবে কাজ করবে।

এইসময় গণভবন প্রান্তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আরোও উপস্থিত ছিলেন- জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ কন্যা শেখ রেহানা, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশি, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ প্রমূখ।

সংবাদ টি শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি ’বর্তমান খবর'কে জানাতে ই-মেইল করুন- bartomankhobar@gmail.com’ আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও খবর...।


Bartoman Khobar ads
Bartoman Khobar ads